শুক্রবার, অগাস্ট ১২

সুইসাইড নোটে যা লিখে গেলেন মালায়লাম অভিনেতা সারথ চন্দ্রন

0

বিনোদন ডেস্ক: ভারতের সিনে দুনিয়ায় আবারও দুঃসংবাদ। আত্মঘাতী হলেন দেশটির আরও এক অভিনয়শিল্পী। তিনি মালায়লাম অভিনেতা সারথ চন্দ্রন। শুক্রবার নিজ বাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে কেরালা পুলিশ। এ সময় মরদেহের পাশ থেকে উদ্ধার হয় একটি সুইসাইড নোট। কী লেখা ছিল ওই নোটে? অভিনেতা সারথ চন্দ্রন সুইসাইড নোটে লিখেছেন, ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়।’ আরও লেখেন, তিনি অনেক দিন ধরে অবসাদে ভুগছিলেন। সুইসাইড নোটের এই লেখা দেখে কেরালা পুলিশের ধারণা, সারথ চন্দ্রন আত্মহত্যাই করেছেন। তবে প্রশ্ন উঠেছে অভিনেতার কাছের মানুষদের মনে। কেউই উত্তর খুঁজে পাচ্ছেন না যে, কী কারণে অবসাদে ভুগছিলেন সারথ। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছে, সারথকে দেখে কখনো বোঝা যায়নি সে অবসাদে ভুগছে। ব্যক্তিগত নাকি পেশাগত জীবনে তিনি অবসাদে ভুগছিলেন তাও জানা যায়নি।কেরালার কক্কড়ে মা-বাবা এবং ভাইয়ের সঙ্গেই থাকতেন ৩৭ বছর বয়সী অভিনেতা সারথ চন্দ্রন। ‘অঙ্গামালি ডায়েরিজ’, ‘ওরু মেক্সিকান আপার্থা’র মতো বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় মালায়লম সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে মালায়ালম সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে। এর আগে চলতি বছরের মে মাসে মাত্র দুই সপ্তাহের মধ্যে আত্মঘাতী হন কলকাতার তিনজন অভিনেত্রী। তারা হলেন- পল্লবী দে, বিদিশা এবং মঞ্জুষা নিয়োগী। তারা একে অন্যের পরিচিত ছিলেন। তারও আগে ২০২০ সালের ১৪ জুন আত্মহত্যা করেন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। সে সময় সুশান্তর মৃত্যুকে ঘিরে বলিউডে তোলপাড় শুরু হয়েছিল। অভিযোগ উঠেছিল, বলিউড মাফিয়াদের কারণে একের পর এক কাজ হারিয়ে হাতাশাগ্রস্ত হয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। মালায়লম অভিনেতা সারথ চন্দ্রনও কি তেমন কোনো হতাশায় ভুগছিলেন? উত্তর অজানা।

Share.